ডিজিটাল বাংলাদেশ
| | |

অনুচ্ছেদঃ ডিজিটাল বাংলাদেশ

আজকের পোস্টে আমরা খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি অনুচ্ছেদ শেয়ার করব “ডিজিটাল বাংলাদেশ“। এই অনুচ্ছেদটি আশা করি তোমাদের পরীক্ষায় কমন আসবে। আমরা এই অনুচ্ছেদটি যত সম্ভব সহজ রাখার চেষ্টা করেছি – তোমাদের পড়তে সুবিধা হবে। চলো শুরু করা যাক।

ডিজিটাল বাংলাদেশ

“ডিজিটাল বাংলাদেশ’ একটি উজ্জ্বল সম্ভাবনার নাম । বর্তমানে বাংলাদেশে এ ধারণাটি বেশ আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ ‘বলতে মূলত বোঝায় দেশকে তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর হিসেবে গড়ে তোলার একটি সুনির্দিষ্ট প্রত্যয়কে। ২০২১ সালে উদ্‌যাপিত হবে বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী। এ সময়ের মধ্যেই ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ গড়ে তোলার লক্ষ্যমাত্রা স্থির করা হয়েছে। আধুনিক বিশ্বব্যবস্থার সাথে তাল মিলিয়ে চলার জন্যে এটি নিঃসন্দেহে একটি সময়োচিত পদক্ষেপ। তবে এ বিষয়ে স্বপ্ন দেখা যতটা সহজ তাকে বাস্তব রূপ প্রদান করা ততটাই কঠিন। একটি দেশকে তখনই ডিজিটাল দেশ বলা যাবে যখন তা পরিপূর্ণভাবে ‘ই-স্টেট’-এ পরিণত হবে। অর্থাৎ ওই দেশের যাবতীয় কার্যাবলি যেমন: সরকারব্যবস্থা, শাসনব্যবস্থা, ব্যবসা-বাণিজ্য, শিক্ষা ও চিকিৎসাব্যবস্থা ইত্যাদি তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে পরিচালিত হবে। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তুলবে একটি আধুনিক জ্ঞানভিত্তিক সমাজব্যবস্থা। শাসনব্যবস্থার প্রতিটি ধাপে কম্পিউটার ও ইন্টারনেটের ব্যবহার নিশ্চিত করা হবে। সুতরাং, ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ গড়ার মূলভিত্তি হলো তথ্যপ্রযুক্তির শক্তিশালী কাঠামো। বাংলাদেশ ধীরে ধীরে এই লক্ষ্য বাস্তবায়নে অগ্রসর হচ্ছে। তবে এখনো অনেকগুলো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আমরা কাঙ্ক্ষিত অগ্রগতি লাভ করতে পারিনি। সমগ্র দেশের বিদ্যুতের ব্যবস্থা এখনো নিরবচ্ছিন্ন করা যায়নি। তথ্যপ্রযুক্তির সাথে সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলো এখনো সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে রয়ে গেছে। তথ্যপ্রযুক্তিকে উত্তমরূপে করায়ত্ত করার জন্যে ইংরেজি ভাষায় দখল থাকা একান্ত জরুরি। এ বিষয়েও আমাদের দুর্বলতা রয়েছে। আশার কথা হলো, বাংলাদেশে তথ্যপ্রযুক্তির উন্নয়ন বেশ দ্রুত ঘটছে। জীবনের নানা প্রয়োজনীয় কাজে আমরা ধীরে ধীরে প্রযুক্তিনির্ভর হয়ে পড়েছি। এই ধারাবাহিকতা বজায় থাকলেই আমাদের “ডিজিটাল বাংলাদেশ’ গড়ার স্বপ্ন বাস্তবে রূপ লাভ করবে।

See also  ভাবসম্প্রসারণঃ আলো বলে, 'অন্ধকার, তুই বড় কালো'  অন্ধকার বলে, ‘ভাই, তাই তুমি আলো'

সম্পূর্ণ পোস্টটি মনোযোগ দিয়ে পড়ার জন্য তোমাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। আশা করছি আমাদের এই পোস্ট থেকে অনুচ্ছেদ যেটি তুমি চাচ্ছিলে সেটি পেয়ে গিয়েছ। যদি তুমি আমাদেরকে কোন কিছু জানতে চাও বা এই অনুচ্ছেদ নিয়ে যদি তোমার কোনো মতামত থাকে, তাহলে সেটি আমাদের কমেন্টে জানাতে পারো। আজকের পোস্টে এই পর্যন্তই, তুমি আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করে আমাদের বাকি পোস্ট গুলো দেখতে পারো।

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *