শৈবাল দিঘিরে বলে উচ্চ করি শির, লিখে রেখো এক ফোঁটা দিলেম শিশির
| |

ভাবসম্প্রসারণঃ শৈবাল দিঘিরে বলে উচ্চ করি শির, লিখে রেখো এক ফোঁটা দিলেম শিশির

আজকের পোস্টে আমরা খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি ভাবসম্প্রসারণ শেয়ার করব “ শৈবাল দিঘিরে বলে উচ্চ করি শির, লিখে রেখো এক ফোঁটা দিলেম শিশির“। এই ভাবসম্প্রসারণটি আশা করি তোমাদের পরীক্ষায় কমন আসবে। আমরা এইভাবসম্প্রসারণটি যত সম্ভব সহজ রাখার চেষ্টা করেছি – তোমাদের পড়তে সুবিধা হবে। চলো শুরু করা যাক।

শৈবাল দিঘিরে বলে উচ্চ করি শির, লিখে রেখো এক ফোঁটা দিলেম শিশির

মূলভাব: অন্যের উপকার করা মানবচরিত্রের একটি মহৎ দিক। কিন্তু একশ্রেণির চাটুকার স্বার্থপর মানুষ আছে যারা মানুষের সামান্যতম উপকার করে গর্বভরে ঢোল পিটিয়ে তা প্রচার করে বেড়ায় ।

সম্প্রসারিত ভাব : মহৎ ও উদার প্রকৃতির মানুষেরা কারও উপকার করলে সে উপকারের কথা কখনো নিজে প্রচার করেন না; বরং নীরবে-নিভৃতে মানবের সেবা করাই তাঁদের লক্ষ্য হয়ে থাকে। মানবসমাজে সংকীর্ণ হৃদয়ের অনেক মানুষ আছে। এরা দিঘির শৈবালের মতো। শৈবালের জন্ম দিঘিতে এবং এর পরিপুষ্টিও হয় দিঘির জলে । এতে দিঘির কোনো অহংকার নেই। কিন্তু পরাশ্রয়ী শৈবাল নিজের বুকে ধারণ করা রাতের শিশির গড়িয়ে দিঘিতে পড়লে আত্ম অহমিকায় মেতে ওঠে। তার দু ফোঁটা শিশিরে দিঘির অগাধ জলের সামান্যতম বৃদ্ধি হয় না । কিন্তু শৈবাল এ দানকে মহৎ কাজ বলে সগৌরবে নিজের মাহাত্ম্য প্রচার করে । পৃথিবীতে একশ্রেণির মানুষ আছে যারা সব সময় অন্যের ওপর নির্ভরশীল। অন্যের সাহায্য-সহযোগিতা নিয়ে এরা বেঁচে থাকে। এরা খুবই সংকীর্ণ হৃদয়ের অধিকারী হয়। কারণ, এরা যদি কখনো উপকারীর উপকার করার সুযোগ পায় তখন এরা সেই উপকারের কথা গর্বভরে প্রচার করে। কিন্তু উদার ও মহৎ মানুষ কখনো পরের উপকার করে তা প্রচার করেন না। তারা আত্মপ্রচার বিমুখ। পৃথিবীতে যাঁরা মানবকল্যাণের জন্যে কাজ করে গেছেন, যাঁরা স্মরণীয়-বরণীয় তাঁরা কখনো আত্মপ্রচার করেননি। তারপরও মহৎ কর্মের জন্যেই তাঁরা মানুষের হৃদয়ে উজ্জ্বল হয়ে আছেন। অপরদিকে, সংকীর্ণ হৃদয়ের মানুষের সামান্য দানে পৃথিবীর কোনো উপকারই হয় না। কিন্তু তা নিয়ে তাদের অহংকারের শেষ নেই। যে ব্যক্তির সংকীর্ণ হৃদয় আত্ম-অহমিকায় পূর্ণ তার গৌরবের কোনো কিছু নেই ।

See also  ভাবসম্প্রসারণঃ শিক্ষাই জাতির মেরুদণ্ড

মন্তব্য : মহৎ ব্যক্তিরা কখনো কোনো কাজ করে গর্ববোধ করেন না। অন্যের কল্যাণের মধ্যেই মহৎ ব্যক্তি আত্মতৃপ্তি লাভ করেন ।

সম্পূর্ণ পোস্টটি মনোযোগ দিয়ে পড়ার জন্য তোমাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। আশা করছি আমাদের এই পোস্ট থেকে ভাব সম্প্রসারণ যেটি তুমি চাচ্ছিলে সেটি পেয়ে গিয়েছ। যদি তুমি আমাদেরকে কোন কিছু জানতে চাও বা এই ভাব সম্প্রসারণ নিয়ে যদি তোমার কোনো মতামত থাকে, তাহলে সেটি আমাদের কমেন্টে জানাতে পারো। আজকের পোস্টে এই পর্যন্তই, তুমি আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করে আমাদের বাকি পোস্ট গুলো দেখতে পারো।

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *